০৭:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাউখালীতে গলায় ফাঁস দেওয়া মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার

  • দৈনিক টার্গেট
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪
  • ৬৩ বার পঠিত

কাউখালী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : পিরোজপুরের কাউখালীতে বাগানে পরে থাকা অবস্থায় গলায় ফাঁস দেওয়া মোঃ আরিফ হোসেন (১৩) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত আরিফ হোসেন পাশ্ববর্তী ঝালকাঠি সদর উপজেলার গুয়াটন গ্রামের ডালিম হোসেনের পুত্র। সে একই এলাকার নওপাড়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। 

শনিবার ( ৮ জুন) সকাল সাড়ে সাত টার দিকে কাউখালী উপজেলার দক্ষিণ বড় বিড়ালজুরি গ্রামের তার নানা বাড়ির বাগান থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

মৃতের মামা সাইদুল কবির জানা যায়, ভাগ্নে আরিফ গত মঙ্গলবার তাদের বাড়িতে মাদ্রাসা থেকে বেড়াতে আসে। সে শুক্রবার সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজ পড়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। পরে আমরা তাকে বিভিন্ন স্হানে রাতে খুঁজে না পেয়ে ধারনা করি সে মাদ্রাসায় চলে গেছে। সে এর আগেও একাধিক বার কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় চলে যায়। শনিবার সকাল সাত টার দিকে বাড়ির পাশের বাগানে আরিফকে পড়ে থাকতে দেখে আমার মা আমাদেরকে ডাক দিলে আমার বাগানে গিয়ে তাকে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে মেম্বারকে জানালে তিনি থানা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে । ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

কাউখালীতে গলায় ফাঁস দেওয়া মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৭:০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪

কাউখালী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : পিরোজপুরের কাউখালীতে বাগানে পরে থাকা অবস্থায় গলায় ফাঁস দেওয়া মোঃ আরিফ হোসেন (১৩) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত আরিফ হোসেন পাশ্ববর্তী ঝালকাঠি সদর উপজেলার গুয়াটন গ্রামের ডালিম হোসেনের পুত্র। সে একই এলাকার নওপাড়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। 

শনিবার ( ৮ জুন) সকাল সাড়ে সাত টার দিকে কাউখালী উপজেলার দক্ষিণ বড় বিড়ালজুরি গ্রামের তার নানা বাড়ির বাগান থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

মৃতের মামা সাইদুল কবির জানা যায়, ভাগ্নে আরিফ গত মঙ্গলবার তাদের বাড়িতে মাদ্রাসা থেকে বেড়াতে আসে। সে শুক্রবার সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজ পড়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। পরে আমরা তাকে বিভিন্ন স্হানে রাতে খুঁজে না পেয়ে ধারনা করি সে মাদ্রাসায় চলে গেছে। সে এর আগেও একাধিক বার কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় চলে যায়। শনিবার সকাল সাত টার দিকে বাড়ির পাশের বাগানে আরিফকে পড়ে থাকতে দেখে আমার মা আমাদেরকে ডাক দিলে আমার বাগানে গিয়ে তাকে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে মেম্বারকে জানালে তিনি থানা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে । ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।