০৬:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাঁচা মরিচের কেজি ২০০ টাকা ছাড়ালো, বেড়েছে ডিম-মাংসের দাম

  • দৈনিক টার্গেট
  • প্রকাশের সময় : ০৩:১৮:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
  • ৩৪ বার পঠিত

হুহু করেই বাড়ছে কাঁচা মরিচের দাম। সপ্তাহ খানেক আগে কাঁচামরিচ ১২০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হতো। এখন সপ্তাহের ব্যবধানে সেটির দাম বেড়ে ২০০ টাকায় পৌঁছেছে। এ ছাড়া বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি, ডিম ও মাংস। আজ শুক্রবার (২৪ মে) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুর, যাত্রাবাড়ী, হাতিরপুল, ধানমণ্ডিসহ বিভিন্ন এলাকার বাজারে গিয়ে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজারে দেখা গেছে, বাজারে কাঁচামরিচ কেজিপ্রতি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে যেসব মরিচের মান কিছুটা ভালো সেই দুই-এক জাতের মরিচ ২২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

সবজির বাজারে দেখা গেছে, প্রতিটি সবজির দামও চড়া। বাজারে এখন প্রতিকেজি বেগুন বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা দরে। কাকরোল ও বরবটির ১০০ থেকে ১২০ টাকায়। পেঁপের কেজিও ৮০ টাকা। ধনে পাতা ২০০ টাকা। তবে ধনে পাতা ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছে বলে দোকানিরা জানিয়েছেন। বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৭৫ টাকায়। আদা বা রসুন ২২০ থেকে ২৪০ টাকার কমে মিলছে না। আলুর কেজি গত সপ্তাহে ৫০ টাকা থাকলেও তা বেড়ে ৫৫ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

ডিমের বাজারে দেখা গেছে, এক হালি ডিম ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা আগের সপ্তাহে ছিল ৪৫ টাকা। আর তিন সপ্তাহ আগে ছিল ৪০ টাকা।

এদিকে বাজারে মুরগিও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। ব্রয়লার মুরগির কেজি ২১০ টাকা দরে। লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৭০ টাকায়। আর সোনালি মুরগি প্রতি কেজি ৩৬০ টাকা ও দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকায়। অপরদিকে, গরুর মাংস আগের বাড়তি দামেই প্রতি কেজি ৭৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর প্রতি কেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ১১০০ টাকায়।

মাছের বাজারে দেখা গেছে, রুই মাছ প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকায়, বড় রুই ৪০০ টাকায়, পাঙাশ ২৩০ টাকা, চিংড়ি আকার ভেদে ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকায়, পাবদা ৪০০ টাকায়, তেলাপিয়া ২২০ টাকায়, চাষের কই ২৮০ টাকায়, কাতলা ৩৫০ টাকায়, গলসা প্রতি কেজি ৫৫০ টাকায়, টেংরা কেজিপ্রতি ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকায়, প্রতি কেজি বড় শিং ৫৫০ টাকায়, ছোট শিং ৪০০ টাকায়, বড় বোয়াল ৭০০ থেকে ৮০০ টাকায় ও বড় আইড় মাছ ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

 

কাঁচা মরিচের কেজি ২০০ টাকা ছাড়ালো, বেড়েছে ডিম-মাংসের দাম

প্রকাশের সময় : ০৩:১৮:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

হুহু করেই বাড়ছে কাঁচা মরিচের দাম। সপ্তাহ খানেক আগে কাঁচামরিচ ১২০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হতো। এখন সপ্তাহের ব্যবধানে সেটির দাম বেড়ে ২০০ টাকায় পৌঁছেছে। এ ছাড়া বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি, ডিম ও মাংস। আজ শুক্রবার (২৪ মে) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুর, যাত্রাবাড়ী, হাতিরপুল, ধানমণ্ডিসহ বিভিন্ন এলাকার বাজারে গিয়ে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজারে দেখা গেছে, বাজারে কাঁচামরিচ কেজিপ্রতি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে যেসব মরিচের মান কিছুটা ভালো সেই দুই-এক জাতের মরিচ ২২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

সবজির বাজারে দেখা গেছে, প্রতিটি সবজির দামও চড়া। বাজারে এখন প্রতিকেজি বেগুন বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা দরে। কাকরোল ও বরবটির ১০০ থেকে ১২০ টাকায়। পেঁপের কেজিও ৮০ টাকা। ধনে পাতা ২০০ টাকা। তবে ধনে পাতা ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছে বলে দোকানিরা জানিয়েছেন। বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৭৫ টাকায়। আদা বা রসুন ২২০ থেকে ২৪০ টাকার কমে মিলছে না। আলুর কেজি গত সপ্তাহে ৫০ টাকা থাকলেও তা বেড়ে ৫৫ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

ডিমের বাজারে দেখা গেছে, এক হালি ডিম ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা আগের সপ্তাহে ছিল ৪৫ টাকা। আর তিন সপ্তাহ আগে ছিল ৪০ টাকা।

এদিকে বাজারে মুরগিও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। ব্রয়লার মুরগির কেজি ২১০ টাকা দরে। লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৭০ টাকায়। আর সোনালি মুরগি প্রতি কেজি ৩৬০ টাকা ও দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকায়। অপরদিকে, গরুর মাংস আগের বাড়তি দামেই প্রতি কেজি ৭৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর প্রতি কেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ১১০০ টাকায়।

মাছের বাজারে দেখা গেছে, রুই মাছ প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকায়, বড় রুই ৪০০ টাকায়, পাঙাশ ২৩০ টাকা, চিংড়ি আকার ভেদে ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকায়, পাবদা ৪০০ টাকায়, তেলাপিয়া ২২০ টাকায়, চাষের কই ২৮০ টাকায়, কাতলা ৩৫০ টাকায়, গলসা প্রতি কেজি ৫৫০ টাকায়, টেংরা কেজিপ্রতি ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকায়, প্রতি কেজি বড় শিং ৫৫০ টাকায়, ছোট শিং ৪০০ টাকায়, বড় বোয়াল ৭০০ থেকে ৮০০ টাকায় ও বড় আইড় মাছ ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।